Download!Download Point responsive WP Theme for FREE!

একটি মানবিক মর্মস্পর্শী ঘটনা

  ছবির নাম : শেষ চিঠি 

কাহিনী , চিত্রনাট্য ও পরিচালনা :তন্ময় রায় 

অভিনয় : সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় , লিলি চক্রবর্তী , মৌবনী সরকার , ঋতব্রত ভট্টাচার্য , সুধীর দত্ত , দুলাল লাহিড়ি,সান্তনা বসু, দেবাশিস গঙ্গোপাধ্যায় , বিশ্বজিত চক্রবর্তী                     

সঙ্গীত :সুধীর দত্ত

প্রযোজনা :সুধীর দত্ত

        ♠ শুক্রবার বসুশ্রী প্রেক্ষাগৃহে তন্ময় রায় এর পরিচালনায় ছবি ‘শেষ চিঠি ‘এর প্রিমিয়ার শো হয়ে গেল । কাহিনির থিমটি পরিচিত এবং  বহু ছবিতেই তা এসেছে বারেবার । আমরা আমাদের জন্মদাতা পিতা মাতা কে ভুলে যাই । যে সময়ে আমাদের তাদের পাসে দাড়ানো দরকার , যে সময়ে তারা নিজের  সন্তান , নাতি , নাতনি নিয়ে আনন্দে দিন কাটাতে চায় , সেই সময়েই তারা নিজের ছেলে , বৌমা , মেয়ে , জামাই এর কাছে যেন একটা বোঝা হয়ে যায় । এমনকি তাদের সঙ্গে থাকাটাও যেন তাদের কাছে অসহ্য হয়ে ওঠে । একটা সময় তারা তাদের কে বৃদ্ধাশ্রমে পাঠিয়ে দেয়।কেউ কেউ তো আরো বেপরোয়া হয়ে আরো মর্মান্তিক কিছু করে -তা আমরা প্রতিনিয়ত খবরের কাগজ খুললেই দেখতে পাই । কিন্ত এটা ভাবি না আজ যেটা আমরা আমাদের পিতা মাতার সঙ্গে করছি ,সেই একই জিনিস আমাদের সন্তানরা আমাদের সঙ্গেও করবে । এই বার্তাতাই ছবির কাহিনীকার , চিত্রনাট্যকার ও পরিচালক তন্ময় রায় বারবার তার ছবি ‘শেষ চিঠি’ তে তুলে ধরলেন ।

শেষ চিঠি ” ছবির একটি দৃশ্য

ছবির কাহিনিতে উঠে আসে মমতা দেবীর (লিলি চক্রবর্তী )ঘটনা । মমতা দেবী অশীতিপর বৃদ্ধা । বর্তমানে স্বামী শিবনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় (সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় )  বেঁচে নেই । শিবনাথের লেখা শেষ চিঠিটা হতে নিয়ে পড়তে পড়তে চোখে জল ভরে আসে মমতা দেবীর । আজ মমতা দেবীকে তার মেয়ে মৌ (মৌবনি সরকার ) ও জামাই রমেন (ঋতব্রত ভট্টাচার্য )তাকে বৃদ্ধাশ্রমে রেখে নিজেদের কর্মস্থল মুম্বাই চলে যাবে , আর প্রাসাদোপম বাড়িটা প্রমোটিং হবে । যে বাড়ির প্রতিটা ইট-পাথরে মমতা দেবীর গভীর স্মৃতি জড়িয়ে আছে । মমতা দেবীকে বৃদ্ধাশ্রমে নিয়ে যাবার সময় থেকে শুরু হয় এক মানবিক মর্মস্পর্শী একটি ঘটানা ।

এরকম একটা অতি বাস্তব প্রেক্ষাপট ছবিতে তুলে ধরার জন্য পরিচালক তন্ময় রায় কে ধন্যবাদ জানাই । সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও লিলি চক্রবর্তী র অভিনয় নিয়ে তো কিছু বলার নেই । ভালো লাগে মৌবনীর চরিত্র অনুযায়ী অভিনয় । পরিচালক তার এই ছবিতে তার সামর্থ অনুযায়ী চেষ্টা করেছেন । তবে ক্যামেরার কাজ ও এডিটিং এই ছবির অতি দুর্বল জায়গা । সুধীর দত্তর সুরে রূপঙ্কর , রাখি , রিক ও ইমন এর কন্ঠে গাওয়া গানগুলো ভালো লাগে

-রামিজ আলি আহমদ

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *